বন্দুক উদ্ধারের চাঞ্চল্যের সৃষ্টি
বন্দুক উদ্ধারের  চাঞ্চল্যের সৃষ্টি

পত্রদূত:  শনিবার সকালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে টি এস আর এবং মুঙ্গিয়াকামি থানার পুলিশ যৌথ তল্লাশি অভিযান চালায় মুঙ্গিয়াকামি থানাধীন ১৮ মুড়া পাহাড়ের খদাই শ্রীরাম এ.ডি.সি ভিলেজের গভীর জঙ্গলে। গভীর জঙ্গলে চিরুনি তল্লাশি চালিয়ে দেখতে পায় জঙ্গলের মধ্যে লুকিয়ে রাখা হয়েছে দুইটি বন্দুক। পুলিশবন্ধুক দুটি উদ্ধার করে মুঙ্গিয়াকামি থানার পুলিশ থানায় নিয়ে আসে।  তবে কোথা থেকে এলো এবং কি কারনে রাখা হয়েছিল বন্ধুক দুটি জঙ্গলে ? তবে কি পাহাড়ে আজও বৈরীর অস্তিত্ব বিরাজমান? উঠছে প্রশ্ন! এই বন্দুক উদ্ধারের ঘটনায় গোটা মঙ্গিয়াকামি থানা এলাকা জুড়ে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। তবে কোথা থেকে এই বন্দুক গুলি আসলো ১৮ মুরা পাহাড়ের গভীর জঙ্গলে তা বেরিয়ে আসবে পুলিশি তদন্তের মধ্য দিয়ে।  এদিকে প্রশ্ন- উঠতে শুরু করে দিয়েছে আরো, এই বন্ধুক দুটি ব্যবহার করে কোন ষড়যন্ত্র চালিয়ে যাচ্ছে না তো! হয়তো এই বন্ধুক দুটি ব্যবহার করে কোন সন্ত্রাস মূলক কর্মসূচি হওয়ার সম্ভাবনা কে উড়িয়ে দিচ্ছে না একাংশ ওয়াকিবহাল মহল। তবে পুলিশি তদন্ত ক্রমেই আসল রহস্য উদ্ঘাটন হবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্ট সচেতন মহল।।

আরো পড়ুন