পিতৃ সম্পত্তি কে কেন্দ্র করে মারপিট
পিতৃ সম্পত্তি কে কেন্দ্র করে মারপিট

পত্রদূত প্রতিনিধিঃ কমলাসাগরঃ পিতৃ সম্পত্তি কে কেন্দ্র করে মারপিট গুরুতর আহত এক থানায় 6 জনের বিরুদ্ধে মামলা। ঘটনা কমলাসাগর বিধানসভা মধুপুর বাজার সংলগ্ন এলাকায়। ঘটনার বিবরণে জানা যায় মধুপুর বাজার সংলগ্ন এলাকার মৃত সুদন বিশ্বাস তার তিন ছেলেকে সমানভাবে জায়গা বন্টন করে দিয়ে যায় মৃত্যুর পূর্বে দীর্ঘদিন তিন ভাই সেই জায়গা ভোগ করলেও আচমকা মেজ ভাই ননী গোপাল বিশ্বাস সেই সম্পত্তি নিতে নারাজ। তার বক্তব্য অন্য দুই ভাইয়ের চেয়ে তাকে সম্পত্তি বেশি দিতে হবে। আর এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে গত কয়েক বছর যাবৎ তিন ভাইয়ের মধ্যে তুমুল ঝামেলা চলছিল। একটা সময় সালিশি সভার মাধ্যমে তা শেষ করে দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু মেজো ভাই ননী গোপাল বিশ্বাস তা মানতে নারাজ। ছোট ভাই মাখন বিশ্বাসের জায়গার দিকে তার কুনজর পড়ে আর তাতেই বিপত্তি ।কিন্তু এদিকে মাখন বিশ্বাস তার জায়গা ছাড়তে নারাজ যেহেতু তার বাবা সেই জায়গা সমানভাবে ভাগ করে দিয়েছিল। এদিকে সেই ঘটনার বহিঃপ্রকাশ ঘটে বুধবার দুপুর বেলা মধুপুর বাজারে। অভিযোগ মাখন বিশ্বাসের পরিবারের উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে তার মেজ ভাই ননী গোপাল বিশ্বাস এবং বোন জামাতা কাজল সরকার তাকে প্রাণে মারার চেষ্টা চালায় দিন দুপুরে। মধুপুর বাজারে ছয়, ছয় জন মিলে বেধড়ক মারধর করে অভিযোগ তাঁর একটি হাত পুরোপুরি ভেঙ্গে দেয় পাশাপাশি তার শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাত করে বাশ এবং লাঠি দিয়ে। একটা সময় মাখন বিশ্বাস বাজারে লুটিয়ে পড়ে এলাকার জনগণ সেখানে তাকে উদ্ধার করে নিয়ে যায় মধুপুর প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে। পরবর্তী সময়ে মধুপুর থানায় মেজ ভাই ননী গোপাল বিশ্বাস তার ছেলে মিঠুন বিশ্বাস এবং জুটন বিশ্বাস অন্যদিকে বোন গীতা বিশ্বাস এবং তার স্বামী কাজল সরকার ও ছেলে খোকন সরকারের বিরুদ্ধে মধুপুর থানায় মামলা দায়ের করে। তা নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে ।যদিও মাখন বিশ্বাসের পরিবার সূত্রে অভিযোগ প্রায় সময়ই সেই সম্পত্তির লোভে মাখন বিশ্বাসকে বেধড়ক মারধর করেছিলেন ননী গোপাল বিশ্বাস ।একটা সময় তার মাথা ফাটিয়ে দেয়। যদিও মাখন বিশ্বাসের পরিবার থেকে অভিযুক্ত ছয়জনের কঠোর শাস্তি দাবি রাখে।

আরো পড়ুন